15 49.0138 8.38624 arrow 0 both 0 4000 1 0 horizontal https://bjingm.org 300 4000 - 0
সর্বশেষ সংবাদ
আমাদের প্রকাশনী

শহীদ আলী আহসান মুজাহিদ (রহ) এর ৮ম শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে শহীদ পুত্রের স্মৃতিচারণ

আজ শহীদ আলী আহসান মো: মুজাহিদের ৮ম শাহাদাত বার্ষিকী..
দেখতে দেখতে ৮টি বছর চলে গেলো। ২০১৫ সালের এ দিনে জালিমের কারাগারে বন্দী থাকা অবস্থায় তিনি শাহাদাত বরণ করেন।
শহীদ আলী আহসান মোহাম্মাদ মুজাহিদকে গ্রেফতার করা হয় ২০১০ সালের ২৯ জুন। গ্রেফতার হওয়ার পর থেকে ৫ বছরেরও বেশী সময় তাকে কারাগারে অন্তরীন রাখা হয়। এই দীর্ঘ সময়ে তাঁর বিরুদ্ধে নানা ধরনের মিথ্যা অপপ্রচার ও প্রোপাগান্ডা চালানো হয়।
তাকে ঘুম থেকে তুলে নিয়ে পরিবারের সাথে শেষ সাক্ষাত করানো হয়। তিনি জানতেনও না, যে তাঁকে ঐ রাতেই ফাঁসি দেয়া হবে। তাকে শেষ মুহুর্তের প্রস্তুতিও নিতে দেয়া হয়নি। পরিবার সাক্ষাৎ করে বের হয়ে যাওয়ার ২৫ মিনিটের মধ্যে তাঁর মৃত্যুদন্ড কার্যকর করা হয়।
এভাবে সর্বক্ষেত্রে মিথ্যাচার ও ন্যায়বিচার থেকে বঞ্চিত করে আমার পিতার প্রতি জঘন্যতম অবিচার করা হয়। তিনি বলিষ্ঠভাবে, মাথা উঁচু করে ফাঁসির মঞ্চে চলে গেছেন। পরবর্তী সময়ে আমরা যতজনের সাথে আলাপ করেছি, তার ফাঁসি কার্যকর করা জল্লাদের যে সাক্ষাতকার শুনেছি, তাতে জেনেছি, তিনি সেই সময়ে খুবই স্বাভাবিক ছিলেন। বারবার জিকির করছিলেন। আল্লাহর সার্বভৌমত্বের ঘোষণা দিচ্ছিলেন। তার চলাফেরায়, কথাবার্তায় ও আচরণে কোনো ধরনের অস্বাভাবিকত্ব ছিল না।
যাবার আগে শেষ সাক্ষাতে তিনি পরিবার ও ইসলামী আন্দোলনের নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে বক্তব্য দিয়ে গেছেন, পরিবারকে তার ব্যবহার্য সকল জিনিষপত্র ফেরত দেয়ার ব্যবস্থা করে গেছেন।
আজ তিনি সকল ধরনের প্রোপাগান্ডা, ষড়যন্ত্র ও অন্যায় অবিচারের উর্ধ্বে। আমরা বিশ্বাস করতে চাই তার এ মৃত্যু শহীদি মৃত্যু। তিনি এই দেশে কুরআনের বিধান প্রতিষ্ঠা করার অভিপ্রায়ে সারাজীবন কাজ করে গিয়েছেন। তাই আল্লাহর কাছে দুআ করি, আল্লাহ যেন তাকে শহীদ হিসেবে কবুল করেন। তার স্বপ্ন অনুযায়ী বাংলাদেশের ইসলামী আন্দোলনকে আরো শক্তিশালী করে দেন। এই মাটিকে ইসলামী আন্দোলনের জন্য কবুল করে নেন।
আমি আমার পিতার জন্য আপনাদের সবার কাছে দুআ চাই। আমাদের মা, আমার ব্যক্তিগত পরিবার, সন্তান সন্ততি ও শহীদ আলী আহসান মো: মুজাহিদের সকল উত্তরাধিকারীর জন্য দুআ চাই। আল্লাহ যেন আমাদের উন্নত ধৈর্য্য ধারন করার ও শহীদের স্বপ্ন অনুযায়ী আমল করার তাওফিক দান করেন। আমিন।
রাব্বির হামহুমা কামা রাব্বা ইয়ানি সাগিরা…
লেখক : আলী আহমদ মাবরুর, শহীদ আলী আহসান মুজাহিদ (রহ) এর ছেলে